সর্বশেষ

» রোগীদের অযথা পরীক্ষা দেবেন না: চিকিৎসকদের স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: ২১. নভেম্বর. ২০২১ | রবিবার

চেম্বার ডেস্ক:: স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, আমাদের হাসপাতালগুলোতে সীমাবদ্ধতা রয়েছে। স্বাস্থ্যসেবায় ৬০ ভাগ টাকা রোগীর পকেট থেকে খরচ করতে হচ্ছে। এর মধ্যে ওষুধের খরচই বেশি।

 

তিনি বলেন, দেশে বেসরকারি পর্যায়ে প্রয়োজনের অতিরিক্ত পরীক্ষা রোগীদের দিয়ে করানো হচ্ছে। এতে রোগীর খরচ বাড়ছে। তাই চিকিৎসকদের প্রতি অনুরোধ, রোগীদের অযথা পরীক্ষা দেবেন না।

রোববার দুপুরে রাজধানীর একটি হোটেলে স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইউনিট কর্তৃক আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

 

জাহিদ মালেক বলেন, দেশে সরকারি হাসপাতালগুলোতে রোগীরা বিনামূল্যে সেবা পেয়ে থাকেন। তবুও দেশ থেকে অনেকেই বিদেশে চিকিৎসার জন্য যান। সেক্ষেত্রে দেশের তুলনায় ১০ গুণ বেশি খরচ হয়ে থাকে।

 

তিনি বলেন, দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থা এখন অনেক ভালো। বাইপাস অপারেশন কোনো না কোনো হাসপাতালে হচ্ছে। ডায়ালাইসিসের ব্যবস্থা হচ্ছে। তবে, আমাদের চিকিৎসা ব্যবস্থা আরও উন্নত হওয়া দরকার।  ক্যানসার, কিডনি ও হার্টের চিকিৎসায়ও আরও উন্নয়ন দরকার।

আট বিভাগে বিশেষায়িত হাসপাতাল তৈরির উদ্যোগের কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে চলে এসেছে। এগুলোতে আন্তর্জাতিক মান অনুযায়ী ক্যানসার, কিডনি ও হার্টের চিকিৎসা হবে। এসব হাসপাতালে চিকিৎসা কার্যক্রম শুরু হলে অনেক রোগীকে চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে যেতে হবে না।

 

দেশের হাসপাতালগুলোতে খরচ আরও কমানো যেতে পারে বলে মনে করেন জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, আমাদের হাসপাতালগুলোতে যে পরিমাণ রিসোর্স থাকুক না কেন, ফান্ডিং, মেশিনারিসহ পরীক্ষা-নিরীক্ষায় ব্যবহৃত যন্ত্রপাতির সঠিক ব্যবহার যদি হয় তাহলে মনে করি খরচ

[hupso]

সর্বশেষ