» বিধ্বস্ত বিমানের যাত্রীদের বেঁচে থাকার আশা ছেড়ে দিয়েছেন উদ্ধারকর্মীরা

প্রকাশিত: ১০. জানুয়ারি. ২০২১ | রবিবার

চেম্বার ডেস্ক:: ইন্দোনেশিয়ায় সাগরে বিধ্বস্ত বিমানের যাত্রীদের বেঁচে থাকার আশা ছেড়ে দিয়েছেন উদ্ধারকর্মীরা। রোববার ধ্বংসাবশেষের সঙ্গে মানুষের শরীরে অংশও পাওয়া গেছে।

উদ্ধারকার্মীরা বলছেন, বিধ্বস্ত বিমানের কাউকে জীবিত উদ্ধারের সম্ভাবনা খুব কম। এ ছাড়া বিধ্বস্ত বিমান থেকে সংকেত পাওয়ার কথা জানিয়েছে ইন্দোনেশিয়ার পরিবহন মন্ত্রণালয়। খবর রয়টার্সের।

ইন্দোনেশিয়ার নৌবাহিনীর কর্মকর্তা ওয়াহিউদ্দিন আরিফ গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, জাভা সমুদ্রে তারা তিন ফুট লম্বা টায়ারের অংশ খুঁজে পেয়েছেন। ধারণা করা হচ্ছে– এটি বিধ্বস্ত বিমানের। এ ছাড়া মানব শরীরে অংশ খুঁজে পাওয়া গেছে।

উদ্ধারকাজে নিয়োজিত এক ডুবুরি জানান, পানির নিচে মেটাল ডিটেক্টর ও পিঞ্জার ডিটেক্টর (পানির নিচে উদ্ধারকাজে ব্যবহৃত যন্ত্র) দিয়ে দুটি ব্ল্যাকবক্স থেকে সংকেত খোঁজার চেষ্টা চলছে।

শ্রীবিজয়া এয়ারের উড়োজাহাজটির মডেল বোয়িং ৭৩৭-৫০০। শনিবার এটি জাকার্তা থেকে ওয়েস্ট কালিমান্তান প্রদেশের রাজধানী পনতিয়ানাকে যাচ্ছিল।

বিমানবন্দর থেকে শনিবার উড্ডয়নের চার মিনিট পর এটি রাডার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। কর্তৃপক্ষ বলছে, বিমানটিতে ১০ শিশুসহ ৬২ যাত্রী ও ক্রু ছিলেন। তারা সবাই ইন্দোনেশীয়।

ইন্দোনেশিয়ার সেনাবাহিনীর প্রধান হাদি তাজাহজান্তোর বরাত দিয়ে দেশটির পরিবহন মন্ত্রণালয় বলেছে, উদ্ধারকারী জাহাজ শ্রীবিজয়া এয়ারের মডেল বোয়িং ৭৩৭-৫০০ থেকে সংকেত পেয়েছে।

ডুবুরিরা পানি থেকে ৭৫ ফুট নিচে উড়োজাহাজের ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পেয়েছেন। তবে এই সংকেত উড়োজাহাজের ব্ল্যাকবক্সের কিনা, তা নিশ্চিত করে বলেনি পরিবহন মন্ত্রণালয়। বিধ্বস্ত হওয়ার সময় উড়োজাহাজটি থেকে কোনো বিপৎসংকেত পাঠানো হয়নি।

[hupso]

সর্বশেষ