» সুনামগঞ্জে পাওনা টাকা না পেয়ে জামিনদারকে গাছে বেঁধে নির্যাতন

প্রকাশিত: ০৮. ডিসেম্বর. ২০২০ | মঙ্গলবার

চেম্বার ডেস্ক:: পাওনা টাকা না পেয়ে জামিনদারকে গাছে বেঁধে নির্যাতন করার ঘটনা ঘটেছে। এমন অভিযোগ করেছেন নির্যাতনের শিকার তোফায়েল আহমদ (৩২)।
তিনি দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার শিমুলবাঁক ইউনিয়নের মুক্তাখাই গ্রামের বাসিন্দা ও মুক্তাখাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দফতরি।

রোববার (৬ ডিসেম্বর) দুপুরে মুক্তাখাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের গাছে বেঁধে তাকে নির্যাতন করা হয়। পরে মারপিটের ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) নির্যাতনের শিকার ওই দফতরি মো. তোফায়েল আহমদ বাদী হয়ে একই গ্রামের মনোয়ার আলীর পুত্র শাহনুর মিয়ার (৩৫) বিরুদ্ধে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানায় অভিযোগ করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, তোফায়েল আহমদ জামিনদার হিসেবে তার আপন চাচাতো ভাই শাহজাহানকে একই গ্রামের শাহানুর মিয়ার কাছ থেকে প্রায় দুই বছর আগে এক লাখ টাকা ধারে নিয়ে দেন। ঋণগ্রহিতা শাহজাহান মিয়া নির্ধারিত সময়ে টাকা পরিশোধ না করায় শাহানুর মিয়া বিষয়টি স্থানীয়দের অবহিত করেন। এ নিয়ে গ্রামে একাধিকবার সালিশ-বৈঠক হলেও জামিনদার তোফায়েল আহমদ ও তার চাচাতো ভাই শাহজাহান মিয়া ঋণের টাকা পরিশোধ করেননি। এরপর ঋণগ্রহিতা শাহজাহান মিয়া মুক্তখাই গ্রাম থেকে অন্যত্র চলে যান। দীর্ঘ দুই বছরেও পাওনা টাকা না পেয়ে ৬ ডিসেম্বর দুপুরে মো. তোফায়েল আহমদকে বিদ্যালয়ের সামনে পেয়ে গাছের গোড়ায় বেঁধে মারপিট করেন শাহনুর মিয়া। পরে স্থানীয় লোকজন তোফায়েল আহমদকে চিকিৎসার জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠায়।

এ ব্যাপারে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ওসি কাজী মুক্তাদির হোসেন বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

[hupso]

সর্বশেষ