» ৭ম বর্ষে পদার্পন করেছে নিউজচেম্বার টুয়েন্টিফোর ডটকম

প্রকাশিত: ০১. সেপ্টেম্বর. ২০২০ | মঙ্গলবার

চেম্বার প্রতিবেদক:: 

সাফল্য ব্যর্থতার ছয় বছর পূর্ণ করেছে পাঠক প্রিয় নিউজচেম্বার২৪.কম। কন্টকাকীর্ণ পথ মাড়িয়ে আজ সপ্তম বর্ষে পদার্পণ করেছে আপনাদের প্রিয় নিউজচেম্বার।

 

আজ যতটা সহজে আমরা বলছি আমরা সপ্তম বর্ষে, পিছনটা আসলে অতটা সহজ ছিল না।  সাফল্য-ব্যর্থতার ছয় বছরে অনেক কঠিন পথই  পাড়ি দিতে হয়েছে আমাদেরকে। বারবার আমরা সাইবার হামলার শিকার হয়েছি। তবে আমাদের বিজ্ঞ আইটি বিশেষজ্ঞ আফরোজ খান সহ অন্যদের সহায়তায় দ্রুতই তা কাটিয়ে উঠতে পেরেছি। এ বিশাল অগ্রযাত্রায় সহযোগিতা করেছেন আমাদের সম্মানিত পাঠকরা। আপনাদের ভালবাসা পেয়েছি বলেই আজ আমরা সপ্তম বর্ষে পা দিতে পেরেছি।

 

আমাদের পথচলায় যারা সহযোগিতা, পরামর্শ দিয়েছেন ও সবসময় বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করছেন, শত ব্যস্ততার মাঝেও যারা প্রতিদিন অন্তত একবার হলেও তাদের প্রিয়

নিউজচেম্বার২৪.কম দেখেছেন-পড়েছেন। আমাদের এগিয়ে চলার সেইসব প্রেরণার উৎসদাতাদের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ।

আগামীতে আমাদের প্রতি আপনাদের অগণিত ভালবাসা, সহযোগিতা আর সুপরামর্শ থাকবে এমনটি প্রত্যাশা করি সবসময়ই।

 

আজ থেকে ছয় বৎসর পূর্বে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করেছিলো নিউজচেম্বার২৪.কম। যাত্রার ছয় বছরে আমরা কতটুকু সফল হয়েছি সে বিচার করবেন পাঠকরা। তবে একটি কথা হলফ করেই বলতে পারি, যখন পথচলা শুরু করে ছিলাম তখন যতটা ভয় আর দ্বিধা কাজ করছিলো মনের গহীনে আজ তার অনেকটাই কেটে গেছে। শুধু আমরা নয়, অনেকেই পথচলা শুরুর দিকে বলেছিলেন, হাজারও কপি পোস্ট অন-লাইনের ভীড়ে আমরা কি আসলেই ব্যতিক্রম হতে পারবো?

নাকি অন্যসব অনলাইনের মতই  মাস দু’য়েকের পথ পাড়ি দিতেই অপমৃত্যু ঘটবে নিউজচেম্বারের। এসব ভয় কাজ করতো আমাদের মনেও। সত্যিই কি আমরা পেরেছি হাজারও অনলাইনের মধ্যে নিজেদের মেলে ধরতে, আমরা কি পেরেছি অনলাইনে আলাদা পাঠক গোষ্ঠী সৃষ্টি করতে?

আমরা কি পেরেছি আমাদের এগিয়ে চলার অনুপ্রেরণা পাঠকদের চাহিদা মেটাতে?

সেই বিচার না হয় পাঠকরাই করবেন।

 

তবে আমরা মনে করি একেবারে ব্যর্থ নয় আমরা। প্রতিদিনের ভিজিটর সংখ্যা দেখলে মনে হয় আমরা সঠিক পথেই আছি। সত্য ও ন্যায়ের সঙ্গেই আছি বলেই এখনো হাজারও অনলাইনের মাঝে বুঁক উচিয়ে দাড়াতে পারছি।

 

“সবার আগে সত্য খবর” স্লোগান নিয়ে পথচলা শুরুর পর থেকেই চেষ্টা করেছি পাঠককে সবার আগে আমরা সত্য খবরটি দিতে। নানা ঘাত-প্রতিঘাত পেরিয়ে, হাজারও সীমাবদ্ধতার মধ্য থেকেও আমরা লক্ষ্যে অটুট থাকার চেষ্টা করেছি সবসময়। সাথে সাথে খবরটি পাঠকের দোরগোড়ায় পৌছে দিতে গিয়ে অনেক সময় বিড়ম্বনার শিকার হতে হয়, হতে হয় তথ্যে বিভ্রাটের। তবে আমরা সবসময়ই সর্বোচ্চ চেষ্টা করি যাতে কোন ধরণের তথ্য বিভ্রাট না হয়। সেজন্যই হয়তো অল্প সময়েই হাজারও অনলাইনের ভিড়ে পাঠকদের প্রিয় অনলাইনে আমরা পরিণত হয়েছি।

 

আমরা সব সময়ই স্থানীয় নিউজকে গুরুত্ব দিয়ে আসছি। জাতীয় নিউজের জন্য অনেকেই আছেন। হাজারো গণমাধ্যম আছে জাতীয় নিউজের জন্য। আমরা তাই স্থানীয় সংবাদ গুলোকেই গুরুত্ব দিতে চাই।

 

অতীতের মত আগামীতেও পাঠকদের আস্থা রেখেই এগিয়ে যেতে যাই সম্মুখপথে।

আমাদের পাঠক, শুভানুধ্যায়ী, বিজ্ঞাপনদাতা সহ সংশ্লিষ্ট সকলের কাছে এই প্রত্যাশাই থাকলো।

[hupso]

সর্বশেষ