সর্বশেষ

» অভিবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স অর্থনীতিতে বড় ভূমিকা রাখছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত: ২৫. জুন. ২০২১ | শুক্রবার

চেম্বার ডেস্ক:: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেছেন, বিশ্বের ১৭০ দেশে বসবাসরত প্রায় এক কোটি ২০ লাখ বাংলাদেশি অভিবাসীর পাঠানো রেমিট্যান্স করোনা মহামারিকালে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে ব্যাপক ভূমিকা রেখেছে। অভিবাসীদের সুবিধার্থে সরকার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে হাতে নিয়েছে।

বৃহস্পতিবার এক ওয়েবিনারে তিনি এসব কথা বলেন। সৌদি আরবের রিয়াদ বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে ’২০৪১ সালে উন্নত বাংলাদেশ গঠন ও বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়ন’ শীর্ষক ওয়েবিনারটির আয়োজন করা হয়েছে।

এতে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল মোমেন বলেন, সৌদি আরবের সঙ্গে বাংলাদেশের চমৎকার বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। কূটনৈতিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার পর থেকেই সৌদি আরব বাংলাদেশের বিশ্বস্ত অংশীদার। সৌদি আরবের সঙ্গে শ্রমবাজারকেন্দ্রিক সহযোগিতার পাশাপাশি দ্বিপক্ষীয় অর্থনৈতিক সম্পর্ক আরও জোরদার করতে হবে যা সম্পর্কের মূল ভিত্তি হিসেবে কাজ করবে। সোনার বাংলাকে বাংলাদেশের ব্র্যান্ড হিসেবে প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হলে আমরা আমাদের সহযোগিতার ভিত্তিকে সহজেই শ্রমবাজার থেকে অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্কে রূপান্তর করতে সক্ষম হব।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, সৌদি আরব ব্যবসা, অর্থনীতি ও বিনিয়োগের সুযোগ সংস্কার করেছে যা কাজে লাগিয়ে আমাদের অনেক অভিবাসীরা সেখানে উদ্যোক্তা হওয়ার সুযোগ নিতে পারেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী, বিপিএম (বার)।

তিনি বলেন, সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাস বাংলাদেশের স্বাধীনতার সূবর্ণজয়ন্তী ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে ইতোমধ্যে বিভিন্ন সভা, সেমিনারসহ নানা অনুষ্ঠান আয়োজন করেছে, যাতে সৌদি আরবে বসবাসরত প্রায় ২৩ লাখ বাংলাদেশি অভিবাসীসহ বিভিন্ন দেশের অভিবাসী ও সৌদি নাগরিকরাও সম্পৃক্ত ছিলেন। সৌদি আরবে বাংলাদেশের শ্রমবাজার বৃদ্ধি, বাংলাদেশের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক বৃদ্ধিতে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা ও অর্থনীতিক সম্পর্ক উন্নয়নে প্রচেষ্টা জোরদার করা হয়েছে।

রাষ্ট্রদূত বলেন, ভিশন ২০৪১ বাস্তবায়ন ও একটি উন্নত বাংলাদেশ গঠনের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়নের জন্য প্রবাসীদের দেশের উন্নয়নে এগিয়ে আসতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে ২০৪১ সালে বাংলাদেশ উচ্চআয়ের দেশে উন্নীত হওয়ার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়ন হবে বলে রাষ্ট্রদূত আশা প্রকাশ করেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির প্রধান সমন্বয়ক ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী ও পররাষ্ট্র সচিব (সিনিয়র সচিব) মাসুদ বিন মোমেন।

ওয়েবিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য (সিনিয়র সচিব) ড. শামসুল আলম।

তিনি ২০৪১ সালে বাংলাদেশকে একটি উচ্চআয়ের দেশে পরিণত করার লক্ষ্যে সরকারের বিভিন্ন পরিকল্পনা তুলে ধরেন। এ ছাড়া তিনি বাংলাদেশ সম্পর্কে বিভিন্ন বিখ্যাত অর্থনীতিবিদ ও আন্তর্জাতিক মিডিয়ার ইতিবাচক রিপোর্ট তুলে ধরেন।

প্যানেল আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নির্বাহী চেয়ারম্যান মো. সিরাজুল ইসলাম, সরকারি- বেসরকারি অংশীদারিত্ব কর্তৃপক্ষের (পিপিপিএ) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সচিব) সুলতানা আফরোজ ও সৌদি ব্যবসায়ী ও বাংলাদেশে বিনিয়োগকারী মোহাম্মদ এন হিজ্জি।

ওয়েবিনার পরিচালনা করেন দূতাবাসের মিশন উপপ্রধান এসএম আনিসুল হক। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত ও কর্মকর্তারা যোগ দেন। এ ছাড়া রিয়াদে বসবাসরত বাংলাদেশি অভিবাসী ও অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

           

সর্বশেষ

আর্কাইভ

July 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031