» বিয়ানীবাজারে কাজের মেয়েকে ধর্ষণ: ১৪ বছর পর আসামী গ্রেফতার

প্রকাশিত: ১৪. জুন. ২০২১ | সোমবার

চেম্বার ডেস্ক:: সিলেটের বিয়ানীবাজারে কাজের মেয়েকে ধর্ষণে সন্তান জন্মের ১৩ বছর পর গ্রেপ্তার হলেন জিয়াউর রহমান নামের এক যুবক। সে বিয়ানীবাজার থানাধীন মাথিউরা পশ্চিম পাড়া গ্রামের মৃত আব্দুস ছালামের পুত্র। ধর্ষণের ঘটনায় ২০০৬ সালে দায়েরকৃত মামলায় তিনি ১৪ বছর ধরে পলাতক ছিলেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

রোববার (১৩ জুন) রাতে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশের একটি দল গোলাপগঞ্জ থানা এলাকার আছিরগঞ্জ এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে। আজ সোমবার সোমবার (১৪ জুন) দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হিল্লোল রায়। তিনি বলেন, জিয়াউর রহমানের ঘরের কাজ করতেন ভিকটিম নারী। সে সময় জিয়াউর রহমান তাঁকে ধর্ষণ করলে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন। পরে ওই নারী বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে। ধর্ষণের ঘটনায় এক সন্তানের জন্ম হয়েছে। সন্তানের বয়স এখন ১৩ বছর। পরে সন্তানসহ ওই নারীর এক জায়গায় বিয়ে হয়েছে। কিন্তু মামলার পর থেকে তিনি পলাতক ছিলেন। দীর্ঘদিন চেষ্টা করে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

[hupso]

সর্বশেষ