» কানাইঘাটে বিধবা নারীকে ধর্ষণ, বিচারের দাবীতে সিলেটে মানববন্ধন

প্রকাশিত: ০৮. মার্চ. ২০২১ | সোমবার

চেম্বার প্রতিবেদক:: 

কানাইঘাটে বোরকা পরে ঘরের দরজা কেটে গৃহে প্রবেশ করে তিন সন্তানের এক বিধবা জননীকে অস্ত্রের মুখে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত আসামী জুবায়ের হাসান শিপুকে অবিলম্বে গ্রেফতার ও সুষ্ট বিচারের মাধ্যমে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতের দাবীতে সিলেটস্থ কানাইঘাটবাসীর ব্যানারে এক মানববন্ধন আজ সোমবার( ৮ মার্চ) বিকেলে সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার প্রাঙ্গণে অনুষ্টিত হয়। মানববন্ধন শেষে সিলেট পুলিশ সুপার বরাবরে এক স্মারকলিপি প্রদান করেন মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, গত ১৯ ফেব্রুয়ারি তারিখে কানাইঘাটের আগতালুক গ্রামে জুবায়ের হাসান শিপু নামে এক ছাত্রদল নেতা রাত ১২ঃ০০ টার পর বোরকা পরে ঘরের দরজা কেটে গৃহে প্রবেশ করে তিন সন্তানের এক বিধবা জননীকে অস্ত্রের মুখে ধর্ষণ করে। ওই নারী জুবায়েরের প্রতিবেশি, একই গ্রামের। এ নিয়ে জনমনে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে।
ভিকটিম নারীর ১১ বছর বয়সী একটি মেয়ে, ৮ ও ৪ বছর বয়সী দুইটি ছেলে রয়েছে। ছোট ছেলেকে মাত্র কয়েক মাসের রেখে প্রায় সাড়ে তিন বছর আগে মারা যান স্বামী। ঘটনার রাতে বিধবা নারীর তিন সন্তানের বড় দুই জন ছিল তাদের মামার বাড়িতে। ওই সুযোগ কাজে লাগায় অভিযুক্ত জুবায়ের। যাওয়ার সময় বিধবা নারীর মোবাইল নম্বর নিয়ে যায়। পরের দিন ফোন করে বলে সে আবারো আসবে। সুযোগ না দিলে বড় ধরণের ক্ষতি করবে।
এ ব্যাপারে গত ১ মার্চ তারিখে কানাইঘাট থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়।মামলা নং
ঘটনার পর বেশ কয়েক দিন অতিবাহিত হলেও আসামীকে এখনো ধরা হয়নি।
মানববন্ধনে বক্তারা এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার সুষ্ঠু ও দ্রুত বিচার নিশ্চিত করতে পুলিশ প্রশাসনের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান। হাফিজ নোমান আহমদ সুহেলের পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ও একাত্মতা পোষণ করেন সিলেট জেলা জজ আদালতের এপিপি এডভোকেট মামুন রশীদ, যুবনেতা আব্দুল বাছিত মাখন, সুলেমান আহমদ দুর্জয় প্রমুখ।

[hupso]

সর্বশেষ