সর্বশেষ

» কানাইঘাটে সম্পত্তি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে হামলা: আহত ২

প্রকাশিত: ২৩. ডিসেম্বর. ২০২০ | বুধবার

কানাইঘাট প্রতিনিধি: সিলেটের কানাইঘাটে পৈতৃক সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জের ধরে হামলায় পিতা-পুত্র আহতের খবর পাওয়া গেছে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কানাইঘাট উপজেলার গাছবাড়ী বাজার সংলগ্ন বাণীগ্রামে এই ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন বানীগ্রামের মোঃ বদরুজ্জামান (৬০) ও তার পুত্র মোঃ রেজাউল করিম আরিফ (২২)। আহতদের রাতেই সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কানাইঘাট উপজেলার বানীগ্রামের রহমত উল্লাহর ৫ পুত্র। এর মধ্যে ১ম পুত্র মোঃ বদরুজ্জামান বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত ও ২য় পুত্র নুুরুল ইসলাম আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত রয়েছেন। কানাইঘাট গাছবাড়ী বাজারে জি এন ফাইভ স্টার কমপ্লেক্স নামে তাদের একটি মার্কেট রয়েছে। ২০১৮ সালে তাদের বাবার মৃত্যুর পর সকল সম্পত্তি নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু আওয়ামীলীগ নেতা নুরুল ইসলাম ক্ষমতার অপব্যবহার করে জি এন ফাইভ স্টার কমপ্লেক্স এর অংশ বড় ভাইকে দিতে অস্বীকৃতি জানিয়ে একা ভোগ করার চেষ্টা করেন। ঐ মার্কেট নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে তাদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিলো। আত্মীয় স্বজন পাড়া প্রতিবেশী একাধিকবার এই বিরোধ নিরসনের চেষ্টা করলেও নুরুল ইসলাম বড় ভাইকে মার্কেটের ভাগ দিতে অস্বীকার করেন।
শেষ পর্যন্ত বিষয়টি ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের কার্যালয় পর্যন্ত গড়ায়। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে ইউনিয়নের বর্তমান ও সাবেক চেয়ারম্যানসহ এলাকার শালিস ব্যক্তিদের নিয়ে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে নুরুল ইসলামকে দায়ী করা হয় এবং বড়ভাই বদরুজ্জামানকে তার অংশ বুঝিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। বৈঠকের সিদ্ধান্ত নুরুল ইসলাম উপেক্ষা করতে পারেন নি। কিন্তু ভাইয়ের প্রতি তিনি আরো ক্ষিপ্ত হন।।
এদিকে বৈঠক শেষে বাড়ীতে ফেরার পথে সন্ধ্যায় বানীগ্রাম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে পৌছা মাত্র আওয়ামীলীগ নেতা নুরুল ইসলাম (৫৫) ও তার পুত্র ছাত্রলীগ নেতা তোফায়েল আহমদ (২৪) মিলে বদরুজ্জামান ও তার ছেলে রেজাউল করিম আরিফের উপর দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র ও দলীয় লাঠিয়াল বাহিনী নিয়ে আকস্মিক হামলা করেন। এতে বদরুজ্জামান ও রেজাউল করিম আরিফ গুরুতর আহত হন। তাদের আর্তচিৎকারে পথচারীরা এগিয়ে এলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় পিতা-পুত্রকে প্রথমে কানাইঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাদের অবস্থার অবনতি ঘটলে রাতেই সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এরমধ্যে রেজাউল করিম আরিফের হাত ভেঙ্গে যায়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত তাদের অবস্থা আশঙ্কামুক্ত বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছে।
এ ব্যাপারে কানাইঘাট থানার ওসি আব্দুল আহাদ বলেন, শুনেছি সম্পত্তির জের ধরে গাছবাড়ী বানীগ্রাম এলাকায় ২ ভাইয়ের মধ্যে মারামারি হয়েছে। ২ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এই ঘটনায় এখনো কেউ অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

[hupso]

সর্বশেষ