সর্বশেষ

» মিশিগান মাতালেন আন্তর্জাতিক নাশীদ শিল্পী ইকবাল হুসাইন জীবন

প্রকাশিত: ৩০. সেপ্টেম্বর. ২০২২ | শুক্রবার

সুলায়মান আল মাহমুদ, মিশিগান থেকে:
যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান অঙ্গরাজ্য মাতিয়ে গেলেন শুদ্ধ সাংস্কৃতিক অঙ্গনের প্রিয়মূখ আন্তর্জাতিক নাশীদ শিল্পী ইকবাল হুসাইন জীবন। ইসলামী সংগীতের সুরের মুর্ছনায় মিশিগানস্থ বাংলাদেশি কমিউনিটির মানুষকে সুন্দর ও প্রানবন্ত একটি নাশীদ সন্ধ্যা উপহার দিয়ে যান তিনি।

গত রোববার মিশিগানের শুদ্ধ সংস্কৃতির বিকাশে অনন্য নাম ‘প্রজ্বলিত সুর’ এর ব্যবস্থাপনায় ওয়ারেন সিটি’র বিসমিল্লাহ কাবাব এন কারি ক্যাফেতে উক্ত নাশীদ সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে দলমত নির্বিশেষে বিপুলসংখ্যক নাশীদপ্রেমী মানুষ উপস্থিত হন। অনুষ্ঠান শুরুর আগেই দর্শকদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে অনুষ্ঠানস্থল। সংগীত শুনতে ভিড় জমান দর্শকরা। স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ৮টা থেকে শুরু হওয়া এ অনুষ্ঠান চলে রাত ১১ টা পর্যন্ত।

শিল্পী সুলায়মান আল মাহমুদের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠিত নাশীদ সন্ধ্যায় সংগীত পরিবেশন করেন জনপ্রিয় আন্তর্জাতিক নাশীদ শিল্পী ইকবাল হুসাইন জীবন। এছাড়া অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন রেনেসাঁ কালচারাল গ্রুপের নন্দিত কন্ঠশিল্পী ইয়াসিন রাহিন, রুবেল আহমদ, কয়েছ আহমদ, মুজাম্মেল হোসাইন, রুহুল হুদা মুবিন। অসাধারণ প্রাণবন্ত কবিতা আবৃত্তি করেন সাংবাদিক ও লেখক মুহাম্মদ মইনুল হক।

৩ ঘন্টাব্যাপী চলা অনুষ্ঠানে অনেক সংগীত পরিবেশন হয়েছে। কিন্তু তাতেও যেন তৃপ্তি মিটেনি অনেকের। উপস্থিত শ্রোতাদের প্রত্যাশা মিশিগানের মাটিতে আরো বিশাল পরিসরে শিল্পী ইকবাল হুসাইন জীবন সহ খ্যাতনামা ইসলামী সংগীত শিল্পীদের উপস্থিতিতে এরকম অনুষ্ঠানের আয়োজন হোক। যুক্তরাষ্ট্রের মতো জায়গায় ইসলামী সংগীতের প্রতি মানুষের এমন ভালোবাসায় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন আয়োজক বৃন্দ।

তারা বলেন, চারিদিকে অপসংস্কৃতির জোয়ারে ভাসলেও আমাদের প্রজন্ম নিজের শিকড় ভুলে নি। আমাদের এই আয়োজন মনে করিয়ে দিয়েছে বিশ্বের যে প্রান্তেই থাকিনা কেন? আমরা সাহসী কণ্ঠে উচ্চারণ করতে পারি। আমরা আমাদের নিজস্ব সংস্কৃতি রয়েছে। আমরা এই ধারাকে বিশ্বের যে কোন প্রান্তে অব্যাহত রাখতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

রাজনৈতিক দল মতের উর্ধ্বে উঠে আয়োজন সফল করায় মিশিগানের বাংলা কমিউনিটির সকল পর্যায়ের নেতৃবৃন্দের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তারা।

           

সর্বশেষ

আর্কাইভ

July 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031