সর্বশেষ
|
প্রকাশ: মঙ্গলবার, আপডেট : ৩০ জুন ২০২০ ০৭:০৬ ঘণ্টা

মেধাবী শিক্ষার্থী হাফিজ ইফজাল হত্যার প্রতিবাদে ফুঁসে উঠেছে ছাত্র জনতা

চেম্বার প্রতিবেদক:: 

সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার বাসিন্দা এমসি কলেজের শিক্ষার্থী হাফিজ ইফজাল আহমদের হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে বিভিন্ন স্থানে ফুঁসে উঠছে ছাত্রজনতা। দ্রুত হত্যা রহস্য উদঘাটন ও খুনীদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারের দাবীতে সোচ্চার জনগণ। এই নিয়ে কর্মসূচী পালন শুরু হয়েছে।  গতকাল সোমবার ( ২৯ জুন) সকালে প্রথম মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেএমসি কলেজের শিক্ষার্থী। সিলেট নগরীতে অনুষ্ঠিত ওই মানববন্ধনে এমসি কলেজের শিক্ষক,শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সেই কর্মসূচীতে কানাইঘাট উপজেলার অনেক ছাত্র ও সাধারণ জনগণও অংশগ্রহণ করে।  মানববন্ধনে বক্তারা ইফজাল আহমদকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে দাবী করেন। অবিলম্বে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে ঘটনার প্রকৃত রহস্য উন্মোচন করার জন্য প্রশাসনের প্রতি জোর দাবী জানান। উল্লেখ্য, ইফজাল এমসি কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।

 

একই দিন দুপুরে নগরীর কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারের সামনে টিউশন সেবা সিলেটের উদ্যোগে আরেকটি মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।  এতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শতাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। মানববন্ধনে একাত্মতা পোষণ করে কানাইঘাট উপজেলা সমাজ কল্যাণ পরিষদ।

টিউশন সেবা সিলেটের শিক্ষক আব্দুল্লাহ আল মামুন সুজনের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন টিউশন সেবা সিলেটের উপদেষ্টা নাজমুস সাকিব, এস এম মনসুর, টিউশন সেবার অন্যতম সংগঠক নাহিদ ফয়সল, কে এম ওয়ালিদ চৌধুরী, এইচ এম আখতার, মুসা মিয়া, শহিদুল ইসলাম, ফারিহা রহমান, এমসি কলেজের শিক্ষার্থী শাহিদ আহমদ, ইফজালের সহপাঠী সামীর আলী, ছাত্র অধিকার পরিষদ এমসি কলেজের যুগ্ম আহবায়ক সাইফুল ইসলাম, যুুগ্ম আহবায়ক জাম্মান আহমদ রাসেল, মাশেদ আহমদ চৌধুরী প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, সম্পূর্ণ সুস্থ ও তরতাজা মেধাবী যুবক হাফিজ ইফজালকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।  ইফজাল হত্যার কয়েক দিন পেরিয়ে গেলেও ঘটনার কোন কূল কিনারা হচ্ছে না। পুলিশের পাশাপাশি গোয়েন্দা সংস্থাগুলোকেও ঘটনাটি গভীরভাবে খতিয়ে দেখার জন্য জোর দাবি জানান তারা।

বক্তারা আরও বলেন, ইফজাল যে বিল্ডিংয়ে থাকতেন সেই বিল্ডিংয়ের সব বাসিন্দাকে দ্রুত জিজ্ঞাসাবাদের আওতায় আনা হোক, প্রশাসন আন্তরিক হলে অবশ্যই মূল রহস্য উন্মোচিত হবে।  উল্লেখ্য,ইফজাল টিউশন সেবার একজন শিক্ষক ছিলেন,যিনি বিনা পারিশ্রমিকে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া করাতেন

 

এদিকে, আজ মঙ্গলবার ( ৩০ জুন)  বিকেলে ইফজালের গ্রামের বাড়ী কানাইঘাট উপজেলার ঝিংগাবাড়ী ইউনিয়নের বুরহান উদ্দিন বাজারে মানববন্ধনের অায়োজন করে ইফজালের নিজ গ্রাম কাপ্তানপুরের সামাজিক সংগঠন কাপ্তানপুর জাগরণ সমাজ কল্যাণ যুব সংঘ। গ্রামবাসীর সহযোগিতায় এ মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন এলাকাবাসী ও স্থানীয় বাজারের ব্যবসায়ীবৃন্দ।

মানববন্ধনে ইফজালের চাচাতো ভাই, কানাইঘাট উপজেলা সমাজ কল্যাণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর বলেন, ইফজালকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। যে বা যারা এ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত তাদেরকে চিহৃিত করে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। এখানেও উল্লেখ্য, ইফজাল ছিলেন কাপ্তানপুর জাগরণ সমাজ কল্যাণ সংঘের সাবেক সেক্রেটারী।

 

অপরদিকে সিলেট নগরীর পাঠানটুলাস্থ শাহজালাল জামেয়া ইসলামিয়া কামিল মাদ্রাসার প্রাক্তন শিক্ষার্থী  হাফিজ ইফজালের মৃত্যুর রহস্য উদঘাটন এবং দোষীদের বিচারের দাবিতে আগামীকাল বুধবার ( ১ জুলাই) সকাল ১১:৩০ মিনিটে মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে জামেয়া ক্যাম্পাসের সামনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। এতে সকলের উপস্থিতি একান্ত কামনা করা হয়েছে।

 

উল্লেখ্য, গত ২৫ জুন, বৃহস্পতিবার সকালে সিলেট নগরীর উপশহর বি-ব্লকের ১৮ নাম্বার রোডের ৩ নাম্বার বাসার নিচতলা থেকে ইফজাল অাহমদ (২৮) এর লাশ উদ্ধার করে শাহপরান থানা পুলিশ। তিনি কানাইঘাট উপজেলার ঝিংগাবাড়ী ইউনিয়নের কাপ্তানপুর গ্রামের মৃত কুতুব অালীর ছেলে।

ইফজাল গত প্রায় ৫ বছর থেকে তার বড় বোনের সাথে ঐ বাসায় থাকতেন।