সর্বশেষ
|
প্রকাশ: শনিবার, আপডেট : ২৩ মে ২০২০ ১২:০৫ ঘণ্টা

উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া সাবেক এমপি পুতুল করোনা পজিটিভ ছিলেন

চেম্বার ডেস্ক: করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া বগুড়ার সাবেক সংসদ সদস্য (এমপি) ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক মহিলা বিষয়ক সম্পাদক কামরুন্নাহার পুতুল (৬৫) করোনা আক্রান্ত ছিলেন।

 

শুক্রবার (২২ মে) রাত ৯টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন বগুড়া সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সামির হোসেনে মিশু।

 

সামির হোসেন মিশু জানান, শুক্রবার (২২ মে) বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল পিসিআর ল্যাব থেকে পাওয়া রিপোর্টে সাবেক সংসদ সদস্য পুতুল, তার ছেলে ও ছেলের স্ত্রী এবং বাড়ির কেয়ারটেকারের করোনা পজিটিভ আসে। এর আগে দুপুরে তাদের বাড়ি লকডাউন এবং সব সদস্যেদের কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

 

এর আগে বৃহস্পতিবার (২১ মে) রাত সোয়া ১১টার দিকে করোনা উপসর্গ নিয়ে শজিমেক হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। তিনি প্রয়াত সংসদ সদস্য মোস্তাফিজার রহমান পটলের স্ত্রী। তিনি এক ছেলে ও দুই মেয়ের জননী ছিলেন।

 

জানা যায়, কামরুন্নাহার পুতুল গত কয়েকদিন ধরে জ্বর, কাশি, পাতলা পায়খানা এবং খাবারে অরুচিজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন। বৃহস্পতিবার রাতে অবস্থার অবনতি হলে তাকে শজিমেক হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানেই তিনি মারা যান।

 

কামরুন্নাহার পুতুল ক’দিন আগে তার অসুস্থ ছেলেকে দেখতে ঢাকায় গিয়েছিলেন। সেখান থেকে ফেরার পর থেকে তিনি অসুস্থতা বোধ করেন। তার শারীরিক সমস্যাগুলো করোনা উপসর্গের সঙ্গে মিলে যাওয়ায় তিনদিন আগে তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত তার রিপোর্ট পাওয়া যায়নি। তবে করোনা সন্দেহভাজন হিসেবেই বগুড়া নামাজগড় গোরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন করা হয়।

 

১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর কামরুন্নাহার পুতুল তৎকালীন বগুড়া-জয়পুরহাট জেলার সংরক্ষিত নারী আসনে সংসদ সদস্য মনোনীত হয়েছিলেন। তার স্বামী মোস্তাফিজার রহমান পটল ১৯৭৩ সালে আওয়ামী লীগের মনোনয়নে বগুড়ার গাবতলী আসনের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।