সর্বশেষ
|
প্রকাশ: শনিবার, আপডেট : ১৬ মে ২০২০ ১০:০৫ ঘণ্টা

কানাইঘাটে যুক্তরাজ্য প্রবাসী শাকুর সিদ্দিকীর অর্থায়নে খাদ্য বিতরণ অব্যাহত

কানাইঘাট প্রতিনিধি : যুক্তরাজ্য প্রবাসী কমিউনিটি নেতা এম এ শাকুর সিদ্দিকীর অর্থায়নে করোনা সংকটকালীন সময়ে কানাইঘাট উপজেলায় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। আজ শনিবার উপজেলার বাউরভাগ গ্রাম নিবাসী যুক্তরাজ্য প্রবাসী এম. শাকুর সিদ্দিকীর অর্থায়নে ৭নং দক্ষিণ বাণীগ্রাম ইউনিয়নে ৪’শ পরিবার ও ৮নং ঝিঙ্গাবাড়ী ইউনিয়নের ১’শ পরিবারে দ্বিতীয় ধাপে চাল সহ নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিতরণ করা হয়। বিকেল ২টায় কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ শামসুদ্দোহা পিপিএম থানার সামনে খাদ্যসামগ্রী বিতরণের সূচনা করেন। এরপর বাণীগ্রাম ইউপির বাউরভাগ গ্রামের কর্ণেল আলী আহমদের বাড়ির সামনে হাজী আব্দুল হামিদ সড়কে ও মাছুখাল বাজার, গাছবাড়ী চৌমোহনী, আকুনি ও ঝিঙ্গাবাড়ী ইউপির দর্জিমাটি, তিনচটি এলাকায় পৃথক ভাবে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কালে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি সিলেট জেলা শাখার সভাপতি ও কানাইঘাট রামিজা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মামুন আহমদ, দৈনিক সিলেটের দিনরাত পত্রিকার সম্পাদক মুজিবুর রহমান ডালিম, কানাইঘাট প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, সমাজসেবী তৈমুর রাজা, গাছবাড়ী বাজার ব্যবসায়ী সমিতির একাংশের সভাপতি সাজ্জাদুর রহমান, রহিম চৌধুরী, বাহার উদ্দিন, হাফিজ ইকরাম, সাদমান হোসাইন, ফয়ছল আহমদ, শিব্বির আহমদ চৌধুরী সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও সাংবাদিকবৃন্দ।

খাদ্য বিতরণের সূচনাকালে থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম বলেন, করোনার এ মহা দুর্যোগকালীন সময়ে কানাইঘাটের অসহায় খেটে খাওয়া ও দিনমজুর পরিবারের পাশে নগদ অর্থ ও খাদ্য সামগ্রী নিয়ে অনেক প্রবাসীরা এগিয়ে আসায় তিনি থানা পুলিশের পক্ষ থেকে প্রবাসীদের সাধুবাদ জানান। সেই সাথে তিনি বলেন, যুক্তরাজ্য প্রবাসী শাকুর সিদ্দিকী তার নিজ উদ্যোগে কানাইঘাটের মানুষকে সহযোগিতা করতে এগিয়ে এসে যে মহানুভবতার পরিচয় দিয়েছেন তা সমাজে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। তিনি বিভিন্ন সময়ে তার এলাকার উন্নয়নের পাশাপাশি কানাইঘাট থানায় পুলিশের জন্য আগে একটি পিকআপ গাড়ী ও মসজিদের উন্নয়নেও সহযোগিতা করেছেন। যুক্তরাজ্য থেকে এক প্রতিক্রিয়ায় শাকুর সিদ্দিকী বলেন, করোনার কারনে দেশের এ সংকটকালীন সময়ে সরকারের পাশাপাশি সমাজের সকল বিত্তশালী ও প্রবাসীরা তাদের সাধ্যানুযায়ী কানাইঘাটের মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে উপহার স্বরূপ খাদ্য ও অর্থ দিয়ে সহায়তা করে যাচ্ছেন। সিলেটের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম ও কানাইঘাট থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম এর আহ্বানে সাড়া দিয়ে তিনি দ্বিতীয় দফায় ৫’শ পরিবারে খাদ্য দিয়েছেন। এরআগে আরো ৫’শ পরিবারে খাদ্য দিয়েছেন তার পক্ষ থেকে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত থাকবে বলে জানান।