সর্বশেষ
|
প্রকাশ: শুক্রবার, আপডেট : ১৫ মে ২০২০ ০৫:০৫ ঘণ্টা

গোয়াইনঘাটে দুইপক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় গ্রেপ্তার ২৭ জন

চেম্বার ডেস্ক: সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার ৪ নম্বর লেঙ্গুরা ইউনিয়নের নিয়াগুল হাওর দখলকে কেন্দ্র করে গতকাল বৃহস্পতিবার (১৪ মে) সকাল সাড়ে ১১টায় শনিরগ্রাম সাকিনে দুইপক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় ২৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়াইনঘাট থানার পুলিশ।

 

হাওর দখলকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনার সংবাদ পেয়ে তাৎক্ষণিক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল আহাদ ও গোয়াইনঘাট উপজেলার সহকারী কমিশনারের (ভূমি) নেতৃত্বে একটি ফোর্স ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। কিন্তু উভয়পক্ষ পুলিশের অনুরোধ উপেক্ষা করে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। একপর্যায়ে বড় ধরণের রক্তপাত কিংবা প্রাণহানি এড়াতে পুলিশ রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। মোট ১৫ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করার একপর্যায়ে উভয়পক্ষ পিছু হটে।

 

পরে ঘটনাস্থলে অভিযান চালিয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িত উভয়পক্ষের মোট ২৭ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পুলিশের তাৎক্ষণিক উপস্থিতি এবং তড়িৎ পদক্ষেপে বড় ধরণের প্রানহানি থেকে রক্ষা পেয়েছেন বলে এলাকার সাধারণ মানুষ পুলিশের ভূমিকার প্রশংসা করেছেন।

 

পরবর্তীতে সংঘর্ষের ঘটনায় শনির গ্রামের হাফিজ উল্লাহ (৪৫) এবং আব্দুস সাত্তার (৪০) বাদী হয়ে দু’টি মামলা দায়ের করেছেন। মামলা দু’টির আসামি হিসেবে ২৭ জনকে আজ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর ও মিডিয়া) মো. লুৎফর রহমান জানান, গোয়াইনঘাটের নিয়াগুল হাওর দখলকে কেন্দ্র করে দুইপক্ষের সংঘর্ষের সংবাদ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ সুপার মহোদয়ের নির্দেশে তাৎক্ষণিক বিপুল সংখ্যক পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। ঘটনার পরবর্তীতে এলাকায় শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে পুলিশের টহল বৃদ্ধি করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এ ধরণের ঘটনার পুনরাবৃত্তি এড়াতে চিহ্নিত দাঙ্গাবাজদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।