সর্বশেষ
|
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, আপডেট : ০৭ মে ২০২০ ১১:০৫ ঘণ্টা

ওমান কারাগার থেকে বিশেষ ক্ষমায় দেশে ফিরলেন ২৮৯ প্রবাসী কর্মী

চেম্বার ডেস্ক: ওমানে বসবাসের বৈধ কাগজপত্র না থাকায় দেশটির কারাগার আছেন বেশ কিছু বাংলাদেশি শ্রমিক। কারাগার থেকে বিশেষ ক্ষমায় মুক্তি দেওয়া ২৮৯ জন প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মী দেশে ফিরেছেন। দেশটির সরকার একটি বিশেষ ফ্লাইটে তাদের দেশে পাঠানো ব্যবস্থা করে। এ নিয়ে দেশটি থেকে চার দফায় ১০৪৭ জন প্রবাসী বাংলাদেশিকে দেশে ফেরত পাঠানো হলো।

 

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় ২৮৯ জন প্রবাসী বাংলাদেশিকে নিয়ে ওমান এয়ারের একটি বিশেষ ফ্লাইট হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এ এইচ এম তৌহিদ উল আহসান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কর্মরত স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ডা. শাহরিয়ার সাজ্জাদ কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘এদের বেশির ভাগই ভিসার মেয়াদ শেষে অবৈধভাবে বসবাসের দায়ে দেশটির শ্রম আদালতের হাতে আটক হয়েছিল। তাদের মুক্তি দেওয়ায় তাঁরা দেশে ফিরেছে। তাঁদের সবার কভিড-১৯ নেই মর্মে সনদ থাকায় হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে।

 

আমরা তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে কারোর মধ্যে কোনো লক্ষণ পায়নি। তাই বাড়ি গিয়ে তাদের কিভাবে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে সে বিষয়ে কাউন্সেলিং করে দিয়েছি।’

 

এদিকে ওমানে মানবসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, মাস্কাটসহ ওমানের বিভিন্ন এলাকা থেকে অবৈধ শ্রমিকদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার অভিযানে ফ্রি ভিসার (ফ্রিল্যান্স কাজ), স্পন্সরদের থেকে পালিয়ে কাজ করার অপরাধ এবং যথাযথ বৈধ কাগজপত্র না দেখাতে পারায় অসংখ্য প্রবাসী শ্রমিককে গ্রেপ্তার করা হয়।

প্রসঙ্গত, মরুর দেশ ওমানে বর্তমানে ৮ লাখ বাংলাদেশি আছেন। কাজের সন্ধানে প্রতিনিয়ত বাংলাদেশ থেকে আরো বহু শ্রমিক প্রবেশ করছেন। এদের মধ্যে বড় একটি অংশ দালালের মাধ্যমে ফ্রি ভিসা নিয়ে এদেশে আসছেন।