সর্বশেষ
|
প্রকাশ: শনিবার, আপডেট : ০২ মে ২০২০ ১০:০৫ ঘণ্টা

কানাইঘাটে এবাদ খুন: পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী পাঠালেন পুলিশ সুপার,সিলেট

কানাইঘাট প্রতিনিধি :কানাইঘাট উপজেলার ৭নং দক্ষিণ বানীগ্রাম ইউপির ছত্রপুর গ্রামের প্রতিপক্ষের আঘাতে নির্মম ভাবে নিহত এবাদুর রহমানের অসহায় ও দরিদ্র পরিবারের জন্য সিলেট জেলা পুলিশ সুপার’র ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে এক মাসের জন্য নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য-সামগ্রী নিয়ে যান কানাইঘাট থানার ওসি সামছুদোহা পিপিএম। এ সময় সেখানে এক আবেগময় পরিস্তিতি দেখা যায়, নিহত এবাদুর রহমানের ছেলে-মেয়েরা কান্নাকাটি শুরু করে বলেন আমার বাবা কে যারা মারছে তাদের উপযুক্ত বিচার চাই,ফাঁসি চাই বলে চিৎকার করে কাঁদতে শুরু করেন। তখন ওসি সামছুদোহা পিপিএম তাদের কে কাছে নিয়ে আদর দিয়ে বলেন, আমার পুলিশ সুপার মহোদয় স্যার আছেন উনার নির্দেশনায় আজ আমি এসেছি তোমাদের খুজ-খবর নিতে সর্বঅবস্থায় আমরা পুলিশ তোমাদের পাশে আছি, থাকব,আমরা চেষ্টা করছি যাতে করে নিহত এবাদুর রহমানের পরিবার ন্যায় বিচার পায়।আজ আমি মাননীয় পুলিশ সুপার এর ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে তোমাদের জন্য এক মাসের  খাদ্য-সামগ্রী দিয়ে গেলাম,আমাদের এই দেওয়া শুরু  হলো, এটা অব্যাহত থাকবে।এসময় উপস্তিত ছত্রপুর গ্রামের মুরব্বীদের উদ্যেশে ওসি সামছুদোহা পিপিএম বলেন, আমি আজ এই ঝড়-বৃষ্টি উপেক্ষা করে নিহত এবাদুর রহমানের বাড়ীতে আমার পুলিশ সুপার মহোদয়ের ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে এক মাসের খাদ্য-সামগ্রী দিয়ে গেলাম,আর নিহত এবাদুর রহমান কে যারা নির্মম ভাবে হত্যা করেছে তাদের কে গ্রেফতার করার জন্য পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে, কোন ভাবে এই খুনিরা পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে পারবে না,তাদের সবাই কে আমরা গ্রেফতার করতে পুলিশ সুপার মহোদয়ের নির্দেশনায় আমি সহ আমার প্রতিটি অফিসার কাজ করে যাচ্ছে, আসা করি কিছু দিনের ভিতরে আমরা আসামীদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হবো,আমরা এবাদুর রহমানের নিহত হওয়ার খবর পেয়েই এই ঘটনার মুল আসামীদের কে গ্রেফতার করার চেষ্টা করি, ঐ দিনেই দুই জন আসামী কে আমরা গ্রেফতার করতে সক্ষম হই।