সর্বশেষ
|
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, আপডেট : ০২ এপ্রি ২০২০ ০৭:০৪ ঘণ্টা

যুক্তরাষ্ট্রে সব কারাগার লকডাউন

চেম্বার ডেস্ক: করোনাভাইরাসের বিস্তার প্রতিরোধে যুক্তরাষ্ট্রে সব কারাগার ১৪ দিনের জন্য লকডাউন করা হয়েছে। দেশটিতে কোয়ারেন্টিন ও আইসোলেশন বাড়তে থাকায় বুধবার এ সিদ্ধান্ত নেয় ফেডারেল বুর্যো অব প্রিজন। এ খবর জানিয়েছে তুর্কি রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম আনাদলু।

সংস্থাটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বন্দিদের কোয়ার্টারে বা সেলে থাকতে হবে অনন্ত দুই সপ্তাহের জন্য। তবে লকডাউন আরও বাড়তে পারে।

 

কারাগারে লকডাউনের সময় প্রতিনিধি, লন্ড্রি, পানি, কম্পিউটার এবং টেলিফোন এ সব ক্ষেত্রে বিশেষ সুবিধা পাওয়া যাবে। মার্কিন ম্যাগাজিন পলিটিকো এক প্রতিবেদনে জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের কারা কর্তৃপক্ষ করোনাভাইরাস বিস্তার রোধে ফেডারেল কারাগারে ১৪ দিনের জন্য বন্দিদের (তাদের জন্য নির্দিষ্ট সেল) থাকতে আদেশ দিয়েছে। বুর্যো অব প্রিজনের পক্ষ থেকে মঙ্গলবার এ সংক্রান্ত এক বিবৃতি দেয়া হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সাধারণ কর্মসূচি ও স্যানিটেশন বজায় রাখার জন্য কিছু ব্যতিক্রম অনুমোদন করা হবে। ফেডারেল প্রিজন এজেন্সির পক্ষ থেকে আরও বলা হয়েছে, তারা যুক্তরাষ্ট্রের মার্সাল সার্ভিসের সঙ্গে যৌথ কাজ করে যাবে; যাতে লকডাউনের সময় নতুন বন্দি সীমিত করা যায়।

মঙ্গলবার প্রকাশিত ফেডারেল কারাগার ব্যবস্থাপনার এক সমীক্ষায় জানা গেছে, ফেডারেল কারাগারে ২৯ জন বন্দি ও ৩০ জন কর্মী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একজন বন্দি মারা গেছেন।

আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা জনস হপকিন্স ইউনির্ভাসিটির তথ্যানুযায়ী বুধবার পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৬ হাজার। আর এ ভাইরাটিতে দেশটিতে সাড়ে ৪ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছেন।

চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত সারা বিশ্বে ৪৮ হাজার ৩১৯ জন মারা গেছেন। আর এ ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৯ লাখ ৭১ হাজার ৭৫৪ জন।