সর্বশেষ
|
প্রকাশ: বুধবার, আপডেট : ২৫ মার্চ ২০২০ ১১:০৩ ঘণ্টা

‘মৃত্যুপুরী’ ইতালিতে আরো ৬৮৩ জনের মৃত্যু, মোট মৃত্যু ৭ হাজার ৫০৩ জন

চেম্বার ডেস্ক: চীনের পর করোনা সবচেয়ে ভয়াল থাবা বসিয়েছে ইতালিতে। এই মারণ ভাইরাসের কালো থাবায় মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে দেশটি। করোনায় আক্রান্ত হয়ে একা একা মারা যাচ্ছেন মানুষ। আর একাই পড়ে আছেন কফিনবন্দি হয়ে।

 

করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ছয়শ ৮৩ জন মারা গেছেন। আর নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন পাঁচ হাজার দু’শ ১০ জন। করোনায় ইতালির মৃতের সংখ্যা পাল্লা দিয়ে বাড়ছে। আজকের ছয়শ ৮৩ জন নিয়ে দেশটিতে মোট মৃত্যের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে সাত হাজার পাঁচশ তিন জনে। আর আক্রান্তের সংখ্যাটি দাঁড়িয়েছে ৭৪ হাজার তিনশ ৮৩ জনে। তবে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরছেন অনেকেই। ৯ হাজার তিনশ ৬২ জন এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

ইতালিতে প্রতিদিনই চলছে মৃত্যুর মিছিল। তবে দেশটির উত্তরাঞ্চলের একটি শহরের মানুষ এই কঠিন সময়ের মধ্যেও খুঁজে পেয়েছে মুক্তি। উন্নত পরীক্ষা পদ্ধতি ও রোগীকে সতর্কতার সাথে আইসোলেশনে রাখার কারণে প্রায় শূন্যের কোঠায় নেমে এসেছে এলাকার মানুষের করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা।

 

ভেনিস থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে ভো শহর। গেল মাসে ভোয়ের তিন হাজার তিনশ জনগণের করোনা টেস্ট করা হয়। ফেব্রুয়ারির ২৩ তারিখে দেশটিতে প্রথম করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়। হিসেব করলে জনসংখ্যার মাত্র তিন শতাংশ করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। শুরু থেকে শনাক্ত সবাইকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয় এবং কোথাও যাওয়া বা কারো সাথে দেখা করার বিষয়ে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়।

 

দু’সপ্তাহ পর বিশেষজ্ঞরা আবার পরীক্ষা করেন যেখানে করোনা পজিটিভের মাত্রা কমে দাঁড়ায় মাত্র ০.৪১ শতাংশ। চলতি মাসের ১৩ তারিখ থেকে এ পর্যন্ত একজন নতুন করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। সম্প্রতি আরো একবার পরীক্ষা করা হয়েছে যেখানে কারো করোনা পজেটিভ আসেনি।