সর্বশেষ
|
প্রকাশ: শুক্রবার, আপডেট : ২১ ফেব্রু ২০২০ ১১:০২ ঘণ্টা

কানাইঘাটে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিয়ে প্রতারণা

চেম্বার ডেস্ক: মহান ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে কানাইঘাট উপজেলা সমাজ কল্যাণ পরিষদ নামে একটি সংগঠনের প্রতারণার ঘটনায় সচেতন মহল বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

 

জানা যায়, মহান ভাষা শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানাতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রথম প্রহরে রাত ১২টা ১ মিনিটে কানাইঘাট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সমবেত হন। একে একে উপজেলা পরিষদ, উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, থানা প্রশাসন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সহ বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। একপর্যায়ে শহীদ মিনার থেকে লোকজন কমে যাওয়ার পর উপজেলা সমাজ কল্যাণ পরিষদের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আহমদ মাসুম সহ তার কয়েকজন সহযোগী শহীদ মিনারের মূল বেদিতে থাকা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডের পুষ্পস্তবকটি সরিয়ে আনে। এরপর পুষ্পস্তবকের নাম পরিবর্তন করে উপজেলা সমাজ কল্যাণ পরিষদের শ্রদ্ধাঞ্জলি লাগানোর দৃশ্য দেখতে পেয়ে উপস্থিত কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতা এগিয়ে আসেন। তারা এভাবে প্রতারণা করে নিজের সংগঠনের নাম অন্য সংগঠনের পুষ্পস্তবকে লাগিয়ে শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানানোর তীব্র প্রতিবাদের মুখে শহীদ মিনার থেকে আহমদ মাসুম সহ তার সাথে থাকা কয়েকজন সটকে পড়েন।

 

এ সময় সেখানে উপস্থিত আওয়ামী লীগ নেতা ইকবাল হোসেন ও শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক জুনেদ হাসান জীবান সহ আরো কয়েকজন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী সেখানে থাকা স্থানীয় সংবাদকর্মীদের কাছে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, উপজেলা সমাজ কল্যাণ পরিষদের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আহমদ মাসুম শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক না এনে অন্য একটি সংগঠনের পুষ্পস্তবকে নিজ সংগঠনের নাম লাগানোর বিষয়টি শহীদদের প্রতি অবমাননার শামিল উল্লেখ করে এ ব্যাপারে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উপজেলা প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

 

শহীদ মিনার থেকে চলে যাওয়ার সময় আহমদ মাসুমের সাথে সাংবাদিকরা কথা বলার চেষ্টা করলে তিনি কোন ধরনের কথা না বলে চলে যান।