সর্বশেষ
|
প্রকাশ: শনিবার, আপডেট : ১৫ ফেব্রু ২০২০ ০৯:০২ ঘণ্টা

উহানফেরত ৩১২ জন বাড়ি ফিরছেন আজ

চেম্বার ডেস্ক: প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক বিশ্বব্যাপী বেড়েই চলেছে। মানুষের মাধ্যমে ছড়ানো এ মহামারিতে উৎপত্তিস্থল চীনে প্রতিদিন গড়ে শতাধিক লোকের প্রাণহানি ঘটছে। এমন প্রেক্ষাপটে করোনা আতঙ্কে উহান থেকে ফিরিয়ে আনা ৩১২ জন বাংলাদেশিকে চূড়ান্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষা সম্পন্ন করে অবশেষে বাড়ি পাঠানো হচ্ছে।

শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক প্রফেসর ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা সংবাদমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, ‘তারা সবাই ভালো আছেন। শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকালেই বাড়ি পাঠানো হবে। আমরা এখন পর্যন্ত মোট ৬২টি নমুনা পরীক্ষা করেছি। এর মাধ্যমে বাংলাদেশে কোভিড-১৯ সংক্রমণের কোনো উপস্থিতি পাওয়া যায়নি।’

সিঙ্গাপুরে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বাংলাদেশিদের বিষয়েও ফ্লোরা কথা বলেছেন। তিনি জানান, সেখানকার বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে পাঠানো খবরে বিষয়টি জানা গেছে। তারা জানিয়েছেন, বাংলাদেশের যে নাগরিকরা কোভিড-১৯ সংক্রমিত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাদের মধ্যে একজন আইসিইউতে আছেন। আর ছয়জন বাংলাদেশি নাগরিককে কোয়ারান্টাইন করে রাখা হয়েছে।’

উল্লেখ্য, চীন থেকে বিভিন্ন দেশে ভাইরাস ছড়াতে থাকায় এ ভাইরাস নিয়ে বৈশ্বিক জরুরি অবস্থা জারি করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। এরপর বাংলাদেশসহ কয়েকটি দেশ তাদের নাগরিকদের উহান থেকে দেশে ফেরানোর উদ্যোগ নেয়।

যার ধারাবাহিকতায় গত ১ ফেব্রুয়ারি বিশেষ বিমানে করে ৩১২ জন বাংলাদেশির প্রথম দলটিকে দেশে আনা হয়। আটজনের শরীরে জ্বর থাকায় তাদের ঢাকার দুটি হাসপাতালে রেখে বাকিদের আশকোনা হজক্যাম্পে ১৪ দিনের পর্যবেক্ষণে পাঠানো হয়।

সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) জানিয়েছে, উহান থেকে ফিরে আসাদের মধ্যে ৩০১ জন এখন আশকোনা হজক্যাম্পে রয়েছেন, বাকি ১১ জন আছেন ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে। কারও মধ্যেই এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসের কোনো উপসর্গ দেখা যায়নি।