|
প্রকাশ: সোমবার, আপডেট : ২০ জানু ২০২০ ০৯:০১ ঘণ্টা

প্রেসিডেন্ট স্কাউট অ্যাওয়ার্ড পেলো কানাইঘাটের সাবিহা ফেরদৌস সানি

চেম্বার প্রতিবেদক: 

স্কাউট আন্দোলন জোরদারের প্রয়োজনীয়তার উপর গুরুত্ব আরোপ করে রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ দেশ ও মানব কল্যাণে স্কাউটিংকে কাজে লাগানোর আহ্বান জানিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘স্কাউটিং লেখাপড়ার পাশাপাশি প্রশিক্ষণের মাধ্যমে একজনকে সুনাগরিক হতে সহায়তা করে। দেশ সেবা ও মানব কল্যাণে স্কাউটিংকে কাজে লাগাতে হবে।’ গাজীপুরের মৌচাকে জাতীয় স্কাউট প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ‘৯ম জাতীয় কাব ক্যাম্পুরী-২০২০’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে স্কাউট আন্দোলনে অসামান্য অবদানের জন্য শিক্ষার্থীদেরকে ‘রাষ্ট্রপতির স্কাউট অ্যাওয়ার্ড’ তুলে দেন। অনুষ্ঠানে তিনি স্মারক ডাকটিকিটও অবমুক্ত করেন তিনি।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী এ কে এম মোজাম্মেল হক, বাংলাদেশ স্কাউটসের সভাপতি মো. আবুল কালাম আজাদ, বাংলাদেশ স্কাউটসের চিফ ন্যাশনাল কমিশনার ও দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কমিশনার ডা. মো. মোজাম্মেল হক খান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

উক্ত ‘প্রেসিডেন্ট স্কাউট ‘(পি.এস)অ্যাওয়ার্ড গ্রহন করেন সারা দেশের প্রায় ৭০৩ জন শিক্ষার্থী,যার মধ্যে মধ্যে সিলেটের শিক্ষার্থী ৩৬ জন। জালালাবাদ ক্যান্টলমেন্ট পাবলিক স্কুলের ১৫ জন, শেখ ওয়াহিদুর রহমান একাডেমির ২জন, খলিল চৌধুরী আদর্শ উচ্চ বিদ্যানিকেতনের ১ জন,পায়রা মুক্ত স্কাউট দলের ২ জন,মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের ১ জন, সিলাম পি.এল বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ১ জন,সোনার বাংলা উচ্চ বিদ্যালয়ের ১ জন,অগ্রদূত মুক্ত স্কাউট দলের ২ জন, বালাগঞ্জ ডি এন উচ্চ বিদ্যালয়ের ১ জন,দি এইডেড স্কুলের ১ জন,ওসমানী আইডিয়াল ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের ১ জন শিক্ষার্থী পি.এস প্রেসিডেন্ট স্কাউট এ্যাওয়ার্ড লাভ করে।

কানাইঘাটের হয়ে এই প্রথম সাবিহা ফেরদৌস সানি প্রেসিডেন্ট অর্জন করেন। সে বিয়ানিবাজার শেখ ওয়াহিদুর রহমান একাডেমির হয়ে স্কাউটে অংশ নেয়। সে বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের অফিসার মো.জামাল উদ্দিনের মেয়ে। বর্তমানে সে কানাইঘাট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত। কানাইঘাট উপজেলায় এই প্রথম স্কাউট প্রেসিডেন্ট অ্যাওয়ার্ড পাওয়ায় সে খুশি এবং সে সকলের কাছে দোয়া প্রার্থী।