|
প্রকাশ: মঙ্গলবার, আপডেট : ১৪ জানু ২০২০ ০২:০১ ঘণ্টা

দেশে মোট জনসংখ্যার ০.১৭ শতাংশ ভিক্ষুক

চেম্বার ডেস্ক: বাংলাদেশে এখন আড়াই লাখের মতো ভিক্ষুক রয়েছে যা মোট জনসংখ্যার শূন্য দশমিক ১৭ শতাংশ।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) সংসদে এক প্রশ্নের জবাবে সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে ভিক্ষুকদের সংখ্যা নির্ধারণের জন্য সমন্বিতভাবে কোনো জরিপ হয়নি। তবে জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে পরিচালিত জরিপের তথ্যের ভিত্তিতে ভিক্ষুকের সংখ্যার হিসাব দেয়া হয়েছে।

ওই হিসেবেই দেশে শূন্য দশমিক ১৭ শতাংশ মানুষ ভিক্ষাবৃত্তির মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করেন। সরকারি দলের দিদারুল আলমের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী ভিক্ষুকের হিসাব দেন। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রশ্নোত্তর টেবিলে উত্থাপিত হয়। ভিক্ষুক পুনর্বাসনে চলতি অর্থ বছরে ৪ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে বলেও জানান মন্ত্রী।

এমপি এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন বলেন, প্রাথমিকের সব শিক্ষার্থীকে বছরের শুরুতে পোশাক, জুতা ও ব্যাগ কেনার জন্য প্রাথমিকভাবে ৫০০ টাকা প্রদানের প্রস্তাব প্রক্রিয়াধীন আছে। উপবৃত্তির পাশাপাশি এক কোটি ৪০ লাখ শিক্ষার্থীকে বছরের শুরুতে এককালীন ৫০০ টাকা প্রদান করা হবে।

সরকারি দলের নাছিমুল আলম চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেন, দেশে সরকার অনুমোদিত ১০৫টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ৯৪টি কার্যক্রম চলছে।

অধিকাংশ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার মান ভালো। কিছু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মান নিয়ে প্রশ্ন আছে। যে সব বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে সার্টিফিকেট বাণিজ্যের অভিযোগ পাওয়া গেছে বা যাচ্ছে তাদের মধ্যে অধিকাংশ আদালতের স্থগিতাদেশ নিয়ে পরিচালিত। আদালতের রায়ে একটি বেসরকারি (দারুল ইহসান) বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ করা হয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, সার্টিফিকেট বাণিজ্য বন্ধ করার জন্য কমিশন থেকে নিয়মিত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো মনিটরিং করা হচ্ছে। প্রত্যেকটি প্রোগ্রামের জন্য ক্রেডিট আওয়ার ও সেমিস্টার আগে থেকে নির্ধারণ করার মাধ্যমে নির্দিষ্ট সংখ্যক আসনের ভিত্তিতে ভর্তি করায় শিক্ষার নামে সার্টিফিকেট বাণিজ্য বহুলাংশে বন্ধ হয়েছে।

অসাধু চক্রের যোগসাজসে পরিচালিত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালগুলোর আউটার ক্যাম্পাস বন্ধ করা হয়েছে এবং অননুমোদিত ক্যাম্পাসবন্ধের বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে। দূরশিক্ষণ কার্যক্রম বন্ধ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদের প্রশ্নের জবাবে গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম জানান, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পে অনিয়মের অভিযোগে ২৯ জন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ১৬ জনকে চাকরি হতে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। হাসপাতালের পূর্ত কাজ ছাড়া উপকরণ কেনাকাটা গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সম্পর্কিত নয় বলে মন্ত্রী এ সময় জানান।

শোক প্রস্তাব গৃহীত:

এদিকে বাগেরহাট-৪ আসনের সংসদ সদস্য মোজাম্মেল হোসেনের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়। গত ১০ জানুয়ারি রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান মোজাম্মেল হোসেন। সংসদে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী শোক প্রস্তাব উত্থাপনের পর তার ওপর আলোচনা করেন সংসদ সদস্যরা।

শোক প্রস্তাবের ওপর আলোচনা করেন আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ নেতা তোফায়েল আহমেদ, মতিয়া চৌধুরী, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, মোহাম্মদ নাসিম, মাহবুব-উল আলম হানিফ, সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ, নৌ প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, আফম রুহুল হক, আব্দুস শহীদ, আসম ফিরোজ, আবুল কালাম আজাদ, মৃনাল কান্তি দাস, ওয়ার্কার্স পার্টির রাশেদ খান মেনন, জাতীয় পার্টির পীর ফজলুর রহমান।

শোক প্রস্তাব সংসদে গ্রহণের পর মোজাম্মেল হোসেনের সম্মানে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয় এবং মোনাজাত করা হয়। চলমান সংসদের কোন সদস্যদের মৃত্যুর পর সংসদের প্রথম বৈঠকে শোক প্রস্তাবের পর অধিবেশন মুলতবি করার রেওয়াজ রয়েছে।

মোনাজাতের পর স্পিকার শিরীন শারমিন সংসদের বৈঠক মুলতবি করেন।