|

রাসুল সা. -এর শানে কবিতাকেন্দ্র, সিলেট’র কবিতাপাঠের আসর

সাহিত্য চেম্বার ডেস্ক: সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মানব মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ সা. -এর জন্ম হয়েছিল কবি ও কবিতার জন্য বিখ্যাত এক জনপদে। তাঁর মা আমিন ছিলেন যুগধর্মের দাবিতে একজন স্বভাব কবি। রাসুল সা. কবি ও কবিতাকে ভালোবাসতেন। হযরত কাব ইবনে মালেক রা. বলেন, রাসুলুল্লাহ সা. একবার আমাদেরকে নির্দেশ দিলেন, ‘যাও, তোমরা মুশরেকদের বিরুদ্ধে কবিতার লড়াইয়ে লেগে যাও। কারণ মুমিন জিহাদ করে জান ও মাল দিয়ে। মুহাম্মদের আত্মা যাঁর হাতে তাঁর শপথ! তোমাদের কবিতা তীরের ফলা হয়ে তাদের কলিজা ঝাঁজরা করে দেবে।’ নবী করিম সা. শুধু কবিতা পাঠে উৎসাহ দিয়ে হাসসান বিন সাবিত রা. -এর জন্য মসজিদে নববীর ভেতরে একটি মঞ্চ পর্যন্ত তৈরি করে দিয়েছিলেন। এতেই প্রতীয়মান হয়, রাসুল সা. কতটা কাব্যপ্রেমিক ছিলেন। তাই আমাদেরকে রাসুল সা. -এর আদর্শে উজ্জিবিত হয়ে কাব্যচর্চা চালিয়ে যেতে হবে। কবিতাকেন্দ্র, সিলেট -এর উদ্যোগে রাসুলুল্লাহ (সা.)-এর শানে কবিতা পাঠের আসরে বক্তারা এসব কথা বলেন।
কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাহিত্য আসর কক্ষে কবিতাকেন্দ্র সিলেটের সভাপতি কবি মুকুল চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ছড়াকার কামরুল আলমের সঞ্চালনায় আসরে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, ফেঞ্চুগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ কবি কালাম আজাদ। সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কর্নেল (অব.) কবি সৈয়দ আলী আহমদ, কবি এমএ হান্নান সেলিম ও কবি বাছিত ইবনে হাবীব।

আলোচনায় অংশ নেন কবিতাকেন্দ্র, সিলেটের সহ-সভাপতি কবি নাজমুল আনসারী, কবি ও কলামিস্ট মোহাম্মদ আব্দুল হক, ড. মো. রহিমুল্যাহ মিঞা, কবি সরওয়ার ফারুকী, শামসির হারুনুর রশীদ ও মাজহারুল ইসলাম জয়নাল।
আসরে রাসুলুল্লাহ সা. -এর শানে নিবেদিত স্বরচিত কবিতা পাঠে অংশ নেন, কবি এম. আশরাফ আলী, কেএম কামরুজ্জামান, ড. মো. রহিমুল্যাহ মিঞা, সরওয়ার ফারুকী, ওমর শরীফ নোমান, শাহেদ শাহরিয়ার, নজমুল হক চৌধুরী, আজমল আহমদ, তাসনিম যায়েদ, লুৎফুর রহমান তোফায়েল, শাহজাহান শাহেদ, সাজিদ মাহমুদ, আব্দুল কদির জীবন, মুয়াজ ববিন এনাম, কুবাদ বখত চৌধুরী রুবেল, আবিদ সালমান, বদরুদ্দীন ফরহাদ, জেনারুল ইসলাম, আবুযর মাহতাবী, রায়হান কবির, মোশাররফ হোসেন সুজাত, মাজহারুল ইসলাম সাদী, মুন্সি আব্দুল কাদির, আমিনা শহীদ চৌধুরী মান্না, হাতিম আল ফেরদৌসী, সাদিক হোসেন এপলু, আহমদ জুয়েল, মিদহাদ আহমদ, জাহেদ জয়, আরমান মুন্না প্রমুখ।
নাতে রাসুল সা. পরিবেশন করেন গণসংগীত শিল্পী মিছবাহ উদ্দীন, কণ্ঠশিল্পী হিফজুর রহমান, শাহজাহান শাহেদ ও শাহানারা বেগম ইমা। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রাবন্ধিক মো. রফিকুল ইসলাম, আজাদ হুসেইন, আতাউর রহমান বঙ্গী, ওমর ফারুক, মো. রেজাউল করিম, জিল্লুর রহমান, রাশেদুল ইসলাম, মাহফুজ আহমদ, মো. নাসির উদ্দিন, এম আলী হোসাইন, আবু তালহা, ফোয়াজা ফারদিন, মো. ওলিউর রহমান, শহীদুল ইসলাম শরীফ, মো. আনোয়ার হোসেন, শমশের আলম, মো. লাহিন নাহিয়ান, আব্দুর রব, আতাউর রহমান, এ.কে. সুজন প্রমুখ।