|

৫ উইকেট হারিয়ে দিশেহারা বাংলাদেশ

চেম্বার ডেস্ক: কলকাতায় দিবারাত্রির টেস্টে ভারতের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাট করছে বাংলাদেশ। এমন ঐতিহাসিক দিনে বাংলাদেশের তিন ‘এম’ আদ্যাক্ষরের ব্যাটসম্যান মুমিনুল, মিঠুন ও মুশফিক আউট হয়ে গেছেন শূন্য রানে, তাও পরপর! এই তিন ‘এম’ এর আগে পরে সাজঘরে ফিরেছেন দুই ওপেনার ইমরুল কায়েস ও সাদমান ইসলাম। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ১৫ ওভারের মধ্যেই ৫ উইকে হারিয়ে দিশেহারা বাংলাদেশ।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশ দলের সংগ্রহ ১৫ ওভার শেষে ৫ উইকেটে ৪৭ রান। উইকেটে এসেই জোড়া বাউন্ডারি হাঁকানো লিটন দাস ৯ রানে খেলছেন। এখনও রানের খাতাই খুলতে পারেননি ১২তম ওভারে উইকেটে আসা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

 

সপ্তম ওভারের প্রথম বলে ইমরুল কায়েসের বিরুদ্ধে কট বিহাইন্ডের আবেদন করেন ইশান্ত শর্মা, আউট দেন আম্পায়ার। তবে রিভিউ নিয়ে বেঁচে যান বাংলাদেশি ওপেনার। দুই বল পর ফের ইশান্তের জোরালো আবেদন, এবার এলবিডব্লিউর। তাতেও আম্পায়ার আঙুল তোলেন, এবার আর রিভিউ নিয়ে ক্রিজে থাকতে পারেননি ইমরুল। ১৫ বলে ৪ রান করে আউট হন তিনি।

এর আগে কলকাতার ইডেন গার্ডেনসে নিজেদের ইতিহাসের প্রথম দিবারাত্রির টেস্ট ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশের অধিনায়ক মুমিনুল হক।

বাংলাদেশ একাদশে দুটি পরিবর্তন এসেছে। মেহেদী হাসান মিরাজ ও তাইজুল ইসলাম বাদ পড়েছেন, ঢুকেছেন নাঈম হাসান ও আল আমিন হোসেন। স্বাগতিকরা ইন্দোর টেস্টের একাদশ নিয়ে নামছে।

এই ম্যাচটি ঘিরে পুরো কলকাতা গোলাপি রঙের আভায় আলোকিত। এমন রোমাঞ্চকর ম্যাচটি দেখার অপেক্ষায় ভারত ও বাংলাদেশের কোটি কোটি ক্রিকেটপ্রেমী।

দিবারাত্রির এই টেস্ট ম্যাচকে ঘিরে চমকপ্রদ অনেক কিছুই থাকছে ইডেনে। ঘণ্টা বাজিয়ে ঐতিহাসিক গোলাপি বলের টেস্টের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টসের পর দুই দলের খেলোয়াড়দের সঙ্গে পরিচিতি পর্ব সারেন তারা। এ সময় তাদের পাশে ছিলেন বিসিসিআইয়ের সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী, বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এবং শচীন টেন্ডুলকার। সবমিলিয়ে টেস্টের প্রথম দিনে নানা আকর্ষণ থাকছে।

উপমহাদেশের প্রথম গোলাপি বলের টেস্ট নিয়ে কলকাতাবাসী এতই রোমাঞ্চিত যে এক সপ্তাহ আগে টেস্টের ৪ দিনের সব টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। টেস্ট ক্রিকেটে গ্যালারি ভড়া দর্শকদের সামনে খেলার খুব একটা সুযোগ হয় না ক্রিকেটারদের। কিন্তু ইডেনে গোলাপি বলের টেস্টে সেই সুযোগ পাচ্ছে বিরাট কোহলি ও মুমিনুল হকের দল।

২০১৫ সালে অ্যাডিলেডে প্রথম দিবারাত্রির টেস্ট হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মাঝে।

বাংলাদেশ একাদশ

সাদমান ইসলাম, ইমরুল কায়েস, মুমিনুল হক, মোহাম্মদ মিঠুন, মুশফিকুর রহীম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, লিটন দাস, নাইম হাসান, আবু জায়েদ রাহী, আল আমিন হোসেন ও এবাদত হোসেন।

ভারত একাদশ

মায়াঙ্ক আগারওয়াল, রোহিত শর্মা, চেতেশ্বর পুজারা, বিরাট কোহলি, আজিঙ্কা রাহানে, রবীন্দ্র জাদেজা, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, ঋদ্ধিমান সাহা, ইশান্ত শর্মা, উমেশ যাদভ ও মোহাম্মদ শামি।