সর্বশেষ
|

সব বিমানবন্দরের আধুনিকায়ন হচ্ছে : বিমান প্রতিমন্ত্রী

চেম্বার ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে দেশের সব বিমানবন্দরের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার পাশাপাশি আধুনিকায়েনের কাজ হাতে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী।

আজ সকালে রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব এয়ারলাইন পাইলটস অ্যাসোসিয়েশনের এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

 

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশের এভিয়েশন খাতে ব্যাপক উন্নয়ন কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের জন্য ইতোমধ্যে নতুন প্রজন্মের ১০টি বোয়িং বিমান ক্রয় করা হয়েছে। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির আরও দুটি নতুন ড্রিমলাইনার আসবে। অভ্যন্তরীণ ও স্বল্প দূরত্বের আন্তর্জাতিক রুটে পরিচালনার জন্য ২০২০ সালের জুনের মধ্যে নতুন ৩টি ড্যাশ-৮ উড়োজাহাজ বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে যোগ হবে।

মাহবুব আলী বলেন, বিমান পরিচালনা একটি পেশাগত দক্ষতার বিষয়। ফ্লাইট অপারেশন করার ক্ষেত্রে প্রতিটি জায়গায় দক্ষ জনবল নিয়োগের বিষয়টি নিরাপত্তার খাতিরেই নিশ্চিত করতে হবে। বিমান পরিচালনার ক্ষেত্রে যাত্রীদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করার বিষয়টি মাথায় রাখলে বিমান দুর্ঘটনা সংক্রান্ত যে কোনো বিষয় প্রতিরোধ করা সম্ভব।

বাংলাদেশী পাইলটের দক্ষতার প্রশংসা করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমি যখনই বাংলাদেশি কোনো বিমানে ভ্রমণ করি তখন এই ভেবে নিশ্চিন্ত হই যে আমি বাংলাদেশি দক্ষ পাইলটের তত্ত্বাবধানে রয়েছি। যেমন আমাদের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সবসময়ই বলে থাকেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের পাইলটরা বিশ্বের অন্যতম সেরা পাইলট।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান এয়ার মার্শাল (অব:) এনামুল বারী, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মো. মফিদুর রহমান, ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব এয়ারলাইনস পাইলটস অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট ক্যাপ্টেন জ্যাক নেক্সটার, নির্বাহী ভাইস-প্রেসিডেন্ট ক্যাপ্টেন ইশতিয়াক হোসেন ও বাংলাদেশ এয়ারলাইন পাইলটস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ক্যাপ্টেন মাহবুবুর রহমান।