সর্বশেষ
|
প্রকাশ: বুধবার, আপডেট : ৩১ মে ২০১৭ ০৩:০৫ ঘণ্টা

ইউটিউব থেকে সরিয়ে নেওয়া হল ‘আল্লাহ মেহেরবান’ গানটি

চেম্বার ডেস্ক : আইনি নোটিশ পাওয়ার পর ইউটিউব থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে ‘আল্লাহ মেহেরবান’ শিরোনামের গানটি। মডেল ও হাল আমালের চলচ্চিত্র নায়িকা নুসরাত ফারিয়া অভিনীত গানটিতে ধর্মানুভূতিতে ‘আঘাত’ দেওয়ার অভিযোগে আইনি নোটিশ পাঠালে তা সরিয়ে নেয় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া।

প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া গানটি সরিয়ে নিয়েছে। সোমবার রাত থেকে সেটি আর জাজ এর অফিসিয়াল ইউটিউবে দেখা যাচ্ছে না। এমনকি সোমবার রাতের পর থেকে জাজ মাল্টিমিডিয়ার ফেইসবুক পেইজেও ‘আল্লাহ মেহেরবান’ গানটির কোনো ছবি এবং ভিডিও দেখা যায়নি।

গানটিতে সৃষ্টিকর্তার নাম ব্যবহার নিয়ে ‘ধর্মানুভূতিতে আঘাত’ দেওয়ার অভিযোগ করে আদালতের মাধ্যমে একটি আইনি নোটিশ পাঠিয়েছিলেন আজিজুল বাসার নামের এক ব্যক্তি।

উল্লেখ্য, রোজার ঠিক আগেই দুই বাংলার আলোচিত মুক্তি প্রতীক্ষিত ছবি ‘বস-টু’-এর ‘আল্লাহ মেহেরবান’ শিরোনামের গানটি প্রকাশিত হয়। সুফিয়ানা ধাঁচের এই গানে দেখা যায় কলকাতার জিৎ ও বাংলাদেশের নুসরাত ফারিয়াকে। সঙ্গে অশ্লীল পোশাক পরে নেচে তীব্র সমালোচনায় মুখে পড়েন চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়া।

নোটিশে বলা হয়, ২৭ মে ইসলামী গান মনে করে আমার মক্কেল (মো. আজিজুল বাশার) ইউটিউবে ‘আল্লাহ মেহেরবান’ গানটি খুঁজে পান। কিন্তু তিনি দেখতে পান গানটি বস-২ নামক চলচ্চিত্রের আইটেম সং। এ গানটিতে আল্লাহর পবিত্র নামকে এত জঘন্যভাবে চিত্রায়িত হয়েছে যা বলার অপেক্ষা রাখে না।

নোটিশে আরো বলা হয়, পবিত্র রমজানের আগে এ রকম ধৃষ্টতাপূর্ণ গান মুক্তি দিয়ে প্রযোজনা সংস্থা দেশের আপামর জনগোষ্ঠীর ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনেছে। তাই আগামী তিনদিনের মধ্যে এ ভিডিও ইউটিউবসহ অন্যান্য মাধ্যম থেকে রিমুভ করতে বলা হয়। অন্যথায় এর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জাজ মাল্টিমিডিয়ার পরিচালক ছাড়াও সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয় সচিব, সাংস্কৃতিক সচিব, বিএফডিসির সভাপতি ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক, পুলিশের আইজি, চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের চেয়ারম্যান বরাবরও নোটিশের অনুলিপি পাঠানো হয়।